This page was exported from HajjSangbad.Com [ http://hajjsangbad.com ]
Export date: Sun Jun 25 5:17:31 2017 / +0000 GMT

হজের নিবন্ধনে মাহরিম ও নিকটাত্মীয় নিয়ে জটিলতা বিপাকে এজেন্সিগুলো




হজের নিবন্ধনে মাহরিম ও নিকটাত্মীয় নিয়ে জটিলতা বিপাকে এজেন্সিগুলো


হজের নিবন্ধনে বেসরকারি ব্যবস্থাপনার হজযাত্রীদের ক্ষেত্রে মাহরিম ও নিকটাত্মীয়দের নিয়ে জটিলতা দেখা দিয়েছে। প্রাক নিবন্ধনে মহিলার সাথে মাহরিম (যে পুরুষের সাথে বিবাহ বন্ধন নিষিদ্ধ) এবং স্বামীর সাথে স্ত্রী বা পরিবারে অন্য সদস্যরা প্রাক নিবন্ধনের নির্ধারিত কোটার সংখ্যার মধ্যে প্রাক নিবন্ধিত না হওয়ার কারণেই এ জটিলতা দেখা দিয়েছে। পাঁচ থেকে চয় হাজার হজযাত্রীর ক্ষেত্রে এ সমস্যা দেখা দিয়েছে বলে জানা গেছে। হজ এজেন্সিগুলো এ নিয়ে বিপাকে পড়েছে।
হজ এজেন্সিগুলোর অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য ইতোমধ্যে একটি কমিটি গঠন করেছে ধর্ম মন্ত্রণলয়। তবে মন্ত্রণালয় শুধু প্রাক নিবন্ধনের নির্ধারিত সংখ্যার মধ্যে থাকা মহিলাদের নামের একটি তালিকা এজেন্সিগুলোর কাছে চেয়েছে। আজকের মধ্যে (২৪ ঘণ্টা) তালিকা দেয়ার জন্য একটি বিজ্ঞপ্তি দেয়া হয়েছে। এজেন্সিগুলো মহিলার পাশাপাশি প্রাক নিবন্ধিত পুরুষদের নিকটাত্মীয়দের বিষয়টিও বিচেনায় নেয়ার অনুরোধ জানিয়েছে।
জানতে চাইলে ভারপ্রাপ্ত ধর্মসচিব আবদুল জলিল নয়া দিগন্তকে বলেন, আমি আমাদের আইটি বিভাগের সাথে কথা বলেছি। আইটির সিস্টেমেই প্রাক নিবন্ধনের সময় মহিলার পরবর্তী সিরিয়ালেই তার স্বামী বা মাহরিমের নাম আসার কথা; কিন্তু এখন বলা হচ্ছে মহিলার সাথে তার স্বামীর নাম আসেনি। বিষয়টি আমার বুঝে আসছে না। তাহলে এজেন্সিগুলো কি মহিলার নিবন্ধনের ক্ষেত্রে মাহরিমের স্থলে অন্য পুরুষদে দেখিয়ে প্রাক নিবন্ধন করেছে? ভারপ্রাপ্ত সচিব বলেন, তারপরও আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য একটি কমিটি করে দিয়েছি।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে হাবের সহসভাপতি ফরিদ আহমেদ মজুমদার বলেন, অনলাইনে প্রাক নিবন্ধনের নিয়মটি এ বছর থেকে নতুন। এ ছাড়া নিবন্ধন শুরু হওয়ার পরই অনলাইনে নানা জটিলতা দেখা দিয়েছিল। এজেন্সিগুলোর মধ্যে প্রতিযোগিতা ছিল। এনআইডি ভ্যারিফিকেশনের ক্ষেত্রে দেখা গেছে স্ত্রীর কিলিয়ারেন্স এসেছে; কিন্তু স্বামীর আসেনি, স্বামীর এসেছে; কিন্তু স্ত্রী বা পরিবারের অন্য সদস্যদের আসেনি। সে ক্ষেত্রে প্রতিযোগিতার কারণেই এজেন্সিগুলোর পক্ষে অনেক ক্ষেত্রে মাহরিম ও নিকটাত্মীয়ের জন্য অপেক্ষা করার সুযোগ ছিল না। এরপরও অনেক এজেন্সি তাদের সংগৃহীত হজযাত্রীর অর্ধেকও প্রাক নিবন্ধন করতে পারেনি। ফলে পুরো বিষয়টি নিয়েই জটিলতা দেখা দিয়েছে।
এ দিকে মাহরিম সম্পর্কিত কমিটির এক বৈঠক মঙ্গলবার সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব জাকির হোসেনের সভাপতিত্বে বৈঠকে হাবের প্রতিনিধিও ছিলেন। এ ব্যাপারে হাবের সহসভাপতি ফরিদ আহমেদ মজুমদার বলেন, আমরা মাহরিম এবং নিকটাত্মীয়দের বিষয়টি একই সাথে দেখার অনুরোধ জানিয়েছি; কিন্তু বৈঠকে আমাদের জানানো হয়েছে, শুধু মাহরিম ছাড়া প্রাক নিবন্ধিত মহিলাদের বিষয়টিই দেখা হবে এবং ২৪ ঘণ্টার মধ্যে তালিকা দেয়ার জন্য বলা হয়েছে। তিনি বলেন, আমরা মাহরিমের পাশাপাশি অন্যান্য নিকটাত্মীয়দের হজের মূল নিবন্ধনের সুযোগ দেয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়ে বুধবার চিঠি দিয়েছি। তিনি বলেন, আমরা ধারণা করছি হজ কার্যক্রমে অংশগ্রহণকারী ৪৬২টি এজেন্সির সব মিলিয়ে এ ধরনের হজযাত্রীর সংখ্যা পাঁচ থেকে ছয় হাজার হবে।
বিভিন্ন এজেন্সির সাথে কথা বলে জানা গেছে, প্রায় প্রতিটি এজেন্সিরই মাহরিম নিকটাত্মীয় নিবন্ধিত হয়নি এমন সংখ্যা পাঁচ থেকে ২০ জন পর্যন্ত রয়েছে। তারা এ হজযাত্রীদের নিয়ে উদ্বিগ্ন। অনেকে তাদের নিকটাত্মীয় ছাড়া হজে যেতে চাইছেন না। এ ক্ষেত্রে এজেন্সিগুলো ক্ষতির শিকার হতে হবে। হজযাত্রীদের মধ্যে এ নিয়ে হতাশা দেখা দিয়েছে।
হলি কনসার্ন হজ এজেন্সির স্বত্বাধিকারি নুর হোসেন জানিয়েছেন, তার এজেন্সির চারজন মহিলার প্রাক নিবন্ধন হয়েছে; কিন্তু তাদের মাহরিমের প্রাক নিবন্ধন হলে সিরিয়াল বেসরকারি এজেন্সির নির্ধারিত কোটা ৮২ হাজার ২০০ জনের বাইরে। এভাবে স্কাইগেস্ট এজেন্সির ১০ জন মহিলা, দারুসুন্নাহ ট্রাভেলস অ্যান্ড ট্যুরসের পাঁচজন, ময়নামতি এভিয়েশনের আটজন, রিয়াদুল জান্নাহ ট্রাভেলসের আটজন মাহরিম ও আত্মীয়কে ছাড়াই প্রাক নিবন্ধন হয়েছে।
হাবের সাবেক ইসি সদস্য মাওলানা ফজলুর রহমান জানিয়েছেন, তার এজেন্সিরও কয়েকজনের এ সমস্যা রয়েছে। এ ছাড়াও আইডি কার্ড ও পাসপোর্টের জন্মতারিখে গরমিলজনিত কারণেও নিবন্ধনে সমস্যা হচ্ছে বলে তিনি জানান।
অন্য দিকে হজযাত্রীদের পাসপোর্টের মেয়াদ আগামী ৩০ মার্চ ২০১৭ পর্যন্ত থাকার বাধ্যবাধকতা আরোপ করায় প্রাক নিবন্ধিত কয়েক শ' হজযাত্রীর নতুন করে পাসপোর্ট করা নিয়েও জটিলতা দেখা দিয়েছে বলে জানা গেছে। এ ক্ষেত্রে বিমান ফাইটের পর থেকে পাসপোর্টের মেয়াদ সর্বোচ্চ ছয় মাস থাকার আন্তর্জাতিক নিয়ম থাকলেও হজযাত্রীদের ক্ষেত্রে প্রায় সাত মাসের বাধ্যবাধকতা আরোপ করা হয়েছে বলে হাবের পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়েছে। হাবের সহসভাপতি ফরিদ আহমেদ মজুমদার বলেন, যদি ৫ আগস্ট থেকে হজ ফাইট শুরু হয় তাহলে ৫ ফেব্রুয়ারি পযন্ত ছয় মাস হয়। আর সর্বশেষ ফাইটের সময় ৫ সেপ্টেম্বর বলা হলেও ছয় মাস পূর্ণ হয় ৫ মার্চে; কিন্তু শর্তারোপ করা হয়েছে ৩০ মার্চ পর্যন্ত মেয়াদ থাকতে হবে। এ জন্য কয়েক শ' পাসপোর্ট নিয়ে জটিলতা দেখা দিেেয়ছে।
এ ব্যাপারে ভারপ্রাপ্ত ধর্মসচিব আবদুল জলিল বলেন, এটা সৌদি সরকারের নিয়ম অনুযায়ী করা হয়েছে। ছয় মাস ভেলিডিটি থাকতে হয় এটা সবাই জানে। যদি ডেটলাইন ছয় মাসের বেশি হয়ে থাকে বিষয়টি দেখা হবে বলে তিনি জানান। এ দিকে হাবও বিষয়টি বিবেচনায় আনার জন্য লিখিতভাবে অনুরোধ জানিয়েছে বলে জানা গেছে।
হজযাত্রীদের পুলিশ ভ্যারিফিকেশনেও কিছু হজযাত্রীর নাম বাদ পড়ছে বলে জানা গেছে। মূলত প্রাক নিবন্ধনের সময় তড়িঘড়ির কারণে এজেন্সির মোবাইল নম্বর উল্লেখ করা এবং এনআইডি আগে অবস্থানের জায়গার ঠিকানায় হওয়ার কারণে সংশ্লিষ্ট হজযাত্রীকে খুঁজে না পাওয়ার কারণেই এই সমস্যা হচ্ছে বলে হাব নেতারা জানিয়েছেন। সে ক্ষেত্রে পুলিশ ভ্যারিফিকেশনে বাদ পড়া হজযাত্রীদের ৩০ মে মূল নিবন্ধন কার্যক্রম শেষ হওয়ার পর দ্বিতীয় দফায় পুলিশ ভ্যারিফিকেশনের জন্য পাঠানোর জন্যও ধর্ম মন্ত্রণালয়কে অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দেয়া হয়েছে বলে হাবের সহসভাপতি ফরিদ আহমেদ মজুমদার জানিয়েছেন। তিনি বলেন, অতীতে প্রতি বছরই এভাবে দুই-তিনবার করে পুলিশ ভ্যারিফিকেশনের নজির রয়েছে। তা ছাড়া ইতোমধ্যে এজেন্সিগুলোকে হজযাত্রীদের মোবাইল ফোন নম্বর ও ঠিকানা সংশোধনের জন্য কয়েক দিন সময় দেয়া হতো। এবার সেটা দেয়া হয়নি। প্রাক নিবন্ধিত হজযাত্রীদের আগামী ৩০ মের মধ্যে এজেন্সিগুলোর ব্যাংক অ্যাকাউন্টে সরকার ঘোষিত সর্বনি¤œ মূল্যের হজ প্যাকেজের টাকা জমা নিশ্চিত করে মূল নিবন্ধন সম্পন্ন করতে হবে। এ জন্য আগামী শুক্র ও শনিবারও নিবন্ধনের জন্য সার্ভার খোলা থাকছে। - See more at: 
Post date: 2016-05-26 19:01:41
Post date GMT: 2016-05-26 19:01:41
Post modified date: 2016-06-07 19:04:40
Post modified date GMT: 2016-06-07 19:04:40
Powered by [ Universal Post Manager ] plugin. HTML saving format developed by gVectors Team www.gVectors.com